ছোট ছোট বালুকণা, 

বিন্দু বিন্দু জল,

গড়ে তুলে মহাদেশ

সাগর অতল।

আমরা জানি, বর্তমান পেক্ষাপটে বিশ্বব্যাপী ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতির কারণে মানুষের খরচ বেড়েছে।আয় এর চেয়ে ব্যয় বেশি হওয়ায় মানুষের সঞ্চয়ের হারও কমেছে।কিন্তু ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আমাদের উচিত মিতব্যয়ী ও সঞ্চয়ী হওয়া। কারন,সঞ্চিত অর্থই ভবিষ্যতে অনাকাঙ্কিত বিপদ-আপদ থেকে আমাদের সুরক্ষা দিতে সক্ষম।

আমাদের জীবনের গড় আয়ু অতি সীমিত। জীবন চলার পথে নানা বাধা-বিপত্তি হুট করেই চলে আসে,এমতাবস্থায় আমরা অনেকেই মানসিক ভারসাম্য যেমন হারিয়ে ফেলি,তেমনি চরম আর্থিক সংকটের মোকাবেলায়ও করতে হয়। আমাদের মৌলিক চাহিদা গুলো তো আছেই,তার সাথে অনাকাঙ্কিত আরো নানা ঝামেলা এসে জুটতে থাকে,উক্ত ঝামেলা থেকে আমাদের সংকট কাটাতে সঞ্চয়ের বিকল্প আর কিছুই হতে পারে না। তাই অনিশ্চয়তার এই জীবনে আমাদের টাকা জমানোর মতো বিকল্প ২য় কোনো আর পন্থা নেই।

সঞ্চয়ীদের নিয়ে এক গবেষনায় ফুটে উঠেছে চমৎকার এক তথ্য বিশ্লেষন।নর্থওয়েস্টার্ন মিউচুয়ালের সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা টাকা জমান তারা কম উদ্বিগ্ন থাকেন এবং তাদের ঘুমও অনেক ভালো হয়।

এখন প্রশ্ন হলো- আপনি সঞ্চয় কিভাবে করবেন?

সত্যি বলতে সঞ্চয়ের অনেক মাধ্যম আছে।তবে আধুনিকায়তনের এই যুগে সঞ্চয়ী হওয়াটা একটু কঠিন। তবুও পরিবেশ,ও পরিস্থিতির  উপর সঞ্চয়ের কিছু প্রধান ধাপ অনুসরন করা যেতে পারে। যেমন–

১))আয় ও ব্যয় এর বিবরনী তালিকা তৈরি করা

২))মৌলিক চাহিদা পূরন শেষে সঞ্চয়ের বাজেট তৈরি করা

৩))ব্যয় কমানো

৪))আয় বাড়ানো

৫))অনাকাঙ্কিত খরচের হ্রাস

সত্যি বলতে টাকা জমানোর শত শত আইডিয়া আছে।যেমন–কেহ সুদে,কেহ ব্যাংক ডিপোজিট,কেহ জমি বর্গা দিয়ে,কেহ পশু পালনের মাধ্যমে।এখন আপনাকে ভাবতে হবে,আপনি পেশাগত কিবা বেকার থেকে কিভাবে সঞ্চয় করবেন?আপনাকে মনে রাখতে হবে, আপনার পজিশন যেমন, ঠিক তার উপর ভিত্তি করেই আপনার টাকা জমানোর স্বদিচ্ছা থাকলে শত বাধা-বিপত্তিতেও টাকা জমাতে পারবেন। 

এখন আপনি যদি একজন বালক/বালিকা হোন,তাহলে আপনি হয়তো মাটির ব্যাংক,কিবা প্লাস্টিকের ব্যাংক কিনে দৈনিক ব্যয় কমিয়ে কিছু কিছু টাকা সেখানে জমাতে পারেন।

আবার আপনি যদি নতুন চাকরীজিবী হোন,তাহলে মাসিক ব্যায় বাদ দিয়ে সেখান থেকে কিছু টাকা ব্যাংকে জমা রাখতে পারেন। এখন তো ব্যাংকেও ডিপোজিট ও নানান ইন্সুরেন্স আছে,চাইলে সেখানেও জমা করা যেতে পারে। 

আপনি যদি হোন পরিবারের প্রধান কর্তা,তাহলে আপনি পরিবারের মাসিক সব খরচ বাদ দিয়ে কিছু কিছু টাকা ব্যাংকে কিবা কোনো শেয়ার ক্ষুদে ব্যবসায় টাকা ইনভেস্ট করতে পারেন,তাতেও সঞ্চয়ের পরিমান কিছু হলেও বাড়বে। 

সত্যি বলতে,টাকা জমানোর কোনো সুনির্দিষ্ট নিঁখুত উপায় নেই।মনোবল আর স্বদিচ্ছা থাকলে যে কোনো উপায়ে টাকা সঞ্চয় করা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *